শশার বস্তা খুলতেই বেরিয়ে এলো অভিনব পন্থায় লুকানো প্রায় ৩ কোটি ৩৫ লাখ টাকা মূল্যের ৩.৩ কেজি দূর্লভ আফিম!!

শশার বস্তা খুলতেই বেরিয়ে এলো অভিনব পন্থায় লুকানো প্রায় ৩ কোটি ৩৫ লাখ টাকা মূল্যের ৩.৩ কেজি দূর্লভ আফিম!! পাহাড়ি এলাকা থেকে শহরে পাচারকালে এক মাদক কারবারিকে আটক করেছে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম।

১। “বাংলাদেশ আমার অহংকার” এই স্লোগান নিয়ে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বিভিন্ন ধরণের অপরাধীদের গ্রেফতারের ক্ষেত্রে জোড়ালো ভূমিকা পালন করে আসছে। র‌্যাব সৃষ্টিকাল থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস উদঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতারসহ আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির সার্বিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে। র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম অস্ত্রধারী সস্ত্রাসী, ডাকাত, ধর্ষক, দুর্ধষ চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, খুনি, ছিনতাইকারী, অপহরণকারী ও প্রতারকদের গ্রেফতার এবং বিপুল পরিমাণ অবৈধ অস্ত্র, গোলাবারুদ ও মাদক উদ্ধারের ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করায় সাধারণ জনগনের মনে আস্থা ও বিশ্বাস অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

২। র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী মাদকদ্রব্য আফিম ও চোলাই মদসহ বান্দরবান হতে চট্টগ্রামগামী একটি যাত্রীবাহী বাসযোগে চট্টগ্রামের দিকে আসছে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে গত ৩১ জুলাই ২০২২ ইং তারিখ ১২৪৫ ঘটিকায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এর একটি আভিযানিক দল চট্টগ্রাম মহানগরীর কর্ণফুলী থানাধীন শিকলবাহা এলাকায় পাকা রাস্তার উপর বিশেষ চেকপোস্ট স্থাপন করে গাড়ি তল্লাশি শুরু করে। এ সময় একটি যাত্রীবাহী গাড়ী তল্লাশী করে আসামী কাকন মল্লিক(৩৬), পিতা-মন্টু মল্লিক, সাং- পূর্ব পুইছড়ি, থানা-বাঁশখালী, জেলা-চট্টগ্রামকে আটক করে। পরবর্তীতে উপস্থিত স্বাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামীর হেফাজতে থাকা একটি সাদা রংয়ের পলিথিনের ভিতর হতে তার নিজ হাতে বের করে দেয়া মতে ৩.৫ লিটার চোলাই মদ এবং একটি প্লাস্টিকের বাজারের ব্যাগের মধ্যে লাল স্কচটেপ দ্বারা মোড়ানো আঠালো ও খয়েরি রংয়ের ৩ কেজি ৩৫০ গ্রাম আফিম উদ্ধারসহ আসামীকে গ্রেফতার করা হয়।

৩। গ্রেফতারকৃত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায় যে, তারা দীর্ঘদিন যাবৎ বান্দরবান জেলার থানচি এলাকা হতে পাইকারি বাজার দরে আফিম ও অন্যান্য মাদক দ্রব্য ক্রয় করে পরবর্তীতে তা খুচরা বাজার দরে দেশের বিভিন্ন স্থানে মাদক ব্যবসায়ী এবং মাদকসেবীদের নিকট বিক্রি করে আসছে। উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্যের আনুমানিক মূল্য ৩কোটি ৩৫ লক্ষ টাকা।

৪। গ্রেফতারকৃত আসামী এবং উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।